জনতার শক্তি

( স্বাগতম, সালাম ও শুভেচ্ছা আপনাদের কে জনতার শক্তির ওয়েবসাইটে । এটি একটি খসড়া ওয়েবসাইট । সময়ে এই সাইট কে আরো শানিত, বানান ভুলমুক্ত ও প্রফেশনাল করা হবে । যদি কারো কাছে ওয়েবসাইটি পছন্দ না হয়, তাহলে ক্ষমা করবেন  )

জনতার শক্তির প্রেক্ষাপট –     বাংলাদেশের অতীত ও বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটের ভিত্তিতে, ‘জনতার শক্তি’ একটি নতুন রাজনৈতিক দল গঠনের প্রচেষ্টা । এরকম দল হয়তো আরো অনেকেই গঠন করছে পূর্বে, তাহলে আপনি প্রশ্ন করতে পারেন যে নতুন কি আছে, জনতার শক্তির মাঝে ।

‘জনতার শক্তি’ একটি সাধনার নাম । কারন আমরা জানি যে পথে আমরা হাঁটছি সে পথ সহজ নয়। এ পথ  কঠিন হবে, দুর্গম হবে, কন্টাকাকীর্ন হবে তবুও আমাদের ধৈর্য ধরে শেষ পর্যন্ত লেগে থাকতে হবে বছরের পর বছর । আমাদের এ সাধনা বাংলদেশের সমস্ত মানুষের রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সাংষ্কৃতিক মুক্তির জন্য। নতুনের এ মুক্তি সংগ্রামের যোদ্ধা আমরা নিজেদের পরিচয় দেই এ প্রজন্মের মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে । স্বাধীনতা, মানবতা, গনতন্ত্র, সংবিধা্‌ন, আবিষ্কার, শিক্ষা, আশা ও আলো আমাদের ভবিষ্যত আলোকবর্তিকা । ‘জনতার শক্তি’ বিশ্বাস করে যে খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা এই পাচঁটি মৌলিক অধিকার প্রত্যেক মানুষের জন্য পূরন করা সম্ভব এবং খুবি অল্প সময়ে সম্ভব যদি সঠিক নেতৃত্ব আসে । যেমন নেতৃত্ব এসেছিল মালেয়েশিয়ার প্রেসিডেন্ট মাহাথির অথবা প্রেসিডেন্ট লি কুয়ান সিঙ্গাপুরে । মালেয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর আর বাংলাদেশ এক নয় কিন্তু নেতৃত্বের গুনাবলি সার্বজনীন । যোগ্যতা, দুরদর্শীতা, সাহস, সহমর্মীতা, কৌশল, ভালবাসা ও জাতীয় অনুপ্রেরনার মাধ্যমে পুরো জাতি একত্রে দেশ গঠনে ব্রত হলে, সবাই মিলে দেশ গড়তে ঝাপিয়ে পরলে, হাত মেলালেই, তখন অসম্ভব, সম্ভব হয় ।

জনতার শক্তি একটি ভালবাসার নাম, যে ভালবাসা রক্তের সম্পর্কের বাইরে দেশের দূর দুরান্তে অসহায় মানুষ গুলিকে আপনজনের মতই ভালবাসার নাম। এ ভালবাসাই জনতার শক্তির প্রতীক। এ ভালবাসা মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি ভালবাসা, পরিবারের প্রতি ভালবাসা, দেশের সকল মানুষের প্রতি ভালবাসা যা রক্তের সম্পর্কের উর্ধে । আমরা যখন কাউকে ভালবাসি তখন আমরা সর্বদা তার ভাল চাই । তাই আমাদের পরিবারের বৃত্ত থেকে বের হয়ে, স্বজনপ্রিতীর বৃত্ত ছিন্ন করে দেশের সকল মানুষ কে ভালবাসতে হবে, আপন পরিবারের মত যেন আমরা সব বাংলাদেশীরা মিলে এক বিশাল পরিবার । যে বিশাল পরিবারের জন্ম হয়েছিল এক সাগরের রক্তের বিনিময়ে । আমরা সবাই একে অন্যের সাথে আপনজন, আমরা সবাই একে অন্যের আত্মার আত্মীয়, তাই আমরা একে অন্যকে যত বেশী ভালবাসবো তত বেশী দেশে আইনের সুশাসন প্রতিষ্টা করা সম্ভব হবে ।

(পরে আরো বিস্তারিত লিখা হবে, কোন প্রশ্ন থাকলে জানাবেন)

ওয়াকী আব্দুল্লাহ, প্রেসিডেন্ট, জনতার শক্তি ।

 

Advertisements